Breaking News

গন্তব্য দেশের চাহিদা অনুযায়ী টিকা পাবেন সৌদি প্রবাসীরা।

গন্তব্যদেশের চাহিদা অনুযায়ী প্রবাসীরা করোনা ভাইরাসের টিকা পাবেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। রবিবার (২১ জুন) রাজধানীতে পরীক্ষামূলকভাবে ফাইজারের টিকাদান কর্মসূচি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

তিনি বলেন, প্রবাসী কর্মীদের কোন কোন দেশে যাওয়ার জন্য সে দেশগুলো ভ্যাকসিনের নাম উল্লেখ করে দিয়েছে। সেসব দেশে কর্মীদের যাওয়ার জন্য অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

বিদেশিদের প্রবেশের জন্য গেলো ১০ মে সৌদি আরব নতুন নীতিমালা প্রকাশ করে। সেখানে বলা হয়, যাদের ভ্যাকসিন নেয়া নেই তাদের ৭ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এজন্য বাংলাদেশি কর্মীদের প্রায় ৭০ হাজার টাকা অতিরিক্ত খরচ হচ্ছে। একইসাথে চারটি ভ্যাকসিনের নাম উল্লেখ করা হয় সেই নীতিমালায়। সেগুলো হলো- ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা, মর্ডানা’র টিকা এবং জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা। কোন প্রবাসী কর্মী সৌদি আরব প্রবেশ করলে এই তালিকায় থাকা যেকোন টিকা নেয়া থাকলে তাদের প্রাতিষ্ঠানিক হোটেল কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে না।

এদিকে মধ্যপ্রাচ্যের আরেক দেশ কুয়েতে বৈধ ইকামাধারী প্রবাসীরা আগামী ১ আগস্ট থেকে প্রবেশ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে কুয়েত সরকার অনুমোদিত ফাইজার, অক্সফোর্ড, জনসন ও মর্ডানার দুই ডোজ টিকা নেওয়া প্রবাসীদের দেশটিতে প্রবেশাধিকার দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

পরীক্ষামূলকভাবে রাজধানীর তিনটি কেন্দ্রে ফাইজারের টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতাল এবং কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ৩৬০ জনকে এই টিকা দেয়া হয়।

এদিকে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডাক্তার শরফুদ্দিন আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, যে সকল বিদেশগামী কর্মীদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে তাদেরকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এই টিকা দেওয়া জরুরি। এজন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোকে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

গত ৩১ মে ফাইজার বায়োনটেক এর ১ লাখ ৬২০ ডোজ টিকা বাংলাদেশে আনা হয়। আজ থেকে এই টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু হয়েছে। কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা না দিলে গণ টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে।

গত বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ভ্যাকসিনে অগ্রাধিকারপ্রাপ্তদের তালিকায় বিদেশগামী কর্মীদের অন্তর্ভুক্ত করে চিঠি ইস্যু করে। চিঠিতে ভ্যাকসিন গ্রহণের বিস্তারিত নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

সেসময় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ জানান, “বর্তমানে দেশে যে ভ্যাকসিন রয়েছে সেটির দুই ডোজ দিতে হয়। আর এতে দুই মাস সময় লাগে। তাই আমরা চেষ্টা করবো জনসন অ্যান্ড জনসনের তৈরি করোনা ভাইরাসের এক ডোজ টিকা দিয়ে কর্মীদের দ্রুত বিদেশ পাঠাতে।”

About admin

Check Also

সৌদি প্রবাসীরা পুলিশের হাতে ধরা দেওয়ার আগে সাবধান। সৌদি থেকে নির্বাসিত হলে আপনি বড় বিপদে পড়বেন।

সৌদি প্রবাসীরা পুলিশের হাতে ধরা দেওয়ার আগে সাবধান। সৌদি থেকে নির্বাসিত হলে আপনি বড় বিপদে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *